ইজি খবর https://www.easykhobor.com/2022/05/blog-post.html

গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ কি? সেরা নিষিদ্ধ ১০টি অ্যাপ ২০২২সালের।


Google play store থেকে য়ে কোন আ্যপ্লিকেশনকে  বা apps কে  প্রবেশের জন্য প্রবেশাধিকার পাওয়ার জন্য বেশ কিছু সিকিউরিটি চেকিং এর মাধ্যমে  যেতে হয়। গুগলের ইউজার দের ফোনকে ত্রুটিপূর্ণ আ্যাপের  অর্থাৎ মালিশিয়াস অ্যাপ এর ক্ষেত্রে ফোনকে সুরক্ষিত রাখতে এইসব নিরাপত্তা গণ্ডি তৈরি করেছে ।

নিষিদ্ধ  অ্যাপ এর সূচিপত্রঃ

  • গুগল প্লে স্টোর অ্যাপ কি শনাক্ত।
  • গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ্লিকেশন ডেটা চুরি।
  • গুগল অভিযোগে অভিযুক্ত।
  • Google Play store নিষিদ্ধ হওয়া ১০টি অ্যাপ্লিকেশ।
  • সর্বশেষ কথা।

আমরা অনেক ক্ষেত্রে দেখতে পাই যে, অ্যাপগুলো প্রথমে মান্যতা পাওয়ার জন্য স্ট্রেন  বিহীন ভার্সন সাবমিট করে, পরে তা আপডেটের দ্বারা  চতুরতা সঙ্গে মালিশিয়াস কোড স্মার্টফোনে এই ধরনের ঘটনা বৃদ্ধির উপায় গুগল প্লে স্টোর এর মাঝে মধ্যে এরকম পর্যবেক্ষণ চালানো হয় ।

গুগল প্লে স্টোর অ্যাপ কি শনাক্ত।

সম্প্রতি একটি এমন এক সিকিউরিটি স্ক্যানিং চালানোর সময় গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ এর মাঝে মাঝে মধ্যে এরকম পর্যবেক্ষণ চালানো হয় সম্প্রতি এক সিকিউরিটি স্ক্যান ইন সময় গুগল প্লে স্টোরে এ বিদ্যমান ১০টি ম্যালিশিয়াস শনাক্ত করা হয়েছে।

শনাক্ত রিপোর্ট অনুসারে এগুলো খুবই বিপদজনক হতে পারে কেননা এগুলো ইউজারদের ঠিকানা থেকে শুরু করে ব্যাংক ডাটা  বা সকল বিষয়ে সব কিছু চুরি করে নিতে সক্ষম ।এগুলো গুগল প্লে স্টোরে ইতিমধ্যেই ১০টি অ্যাপ কে ব্যান্ড করেছে এবং পাশা পাশি এগুলোর নাম উল্লেখ করে একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। যাতে গুগল প্লে স্টোর ব্যবহারকারীরা তাদের মোবাইল এবং কম্পিউটারে অ্যাপ ডাউনলোড করতে নিষেধ করেছেন এবং অবিলম্বে ফোন থেকে এসব এ্যাপসমূহ মুছে দিতে পারেন।

গুগল প্লে স্টোরে অ্যাপ্লিকেশন ডেটা চুরি।

গুগলে সদ্য প্রকাশিত ১০টি অ্যাপ কে গুগল প্লে স্টোর থেকে নিষিদ্ধ করেছে। এই অ্যাপ গুলো বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর ডাটা চুরি অভিযোগ আছে। জেনারেটর ওয়ার্ল্ড স্টেটস জেনারেলের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী ব্যান্ড হওয়া অ্যাপগুলি কে এখন পর্যন্ত ৬০ মিলিয়ন আরও বেশি বার ডাউনলোড করা হয়েছে রিপোর্টে আরো বলা হয়েছে ।

এসব নিষিদ্ধ অ্যাপ এর দ্বারা হ্যাকাররা ব্যবহারকারীদের অবস্থান জেনে যেত এ কিভাবে ইমেইল ফোন নাম্বার পাসওয়ার্ড এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য চুরি করতে হলে যেকোনো কারণে এগুলোর জালিয়াতির ঘটনা ঘটানো হ্যাকারদের জন্য হঠাৎ খুব সহজ সাধ্য ব্যাপার ছিল।

গুগল অভিযোগে অভিযুক্ত।

হ্যাকিং এর পদ্ধতি সংক্ষেপে ব্যাখ্যা করে রিপোর্ট করেছেন এগুলো ক্ষতিকারক সেজন্য অ্যাপ গুলোর সাহায্যে কার্ড এবং পেস্ট এর মাধ্যমে ডাট চুরি করা হতো অর্থাৎ ব্যবহারকারী যখন কোন ওটিপি  অন্যান্য বিবরণ কপি-পেস্ট করে ফোনে রাখতে পারতো থেকে হ্যাকার তাদের অ্যাপের মাধ্যমে সেসব তথ্য চুরি করেনি তো এবং এমনি কে হোয়াটসঅ্যাপ ডাউনলোড ফাইল এক্সিস্টস করতে ও পারতো নিষেধ  এ্যাপগুলো।

Google Play store নিষিদ্ধ হওয়া ১০টি অ্যাপ ২০২২সালের যেমন

  • Speed Radar Camera
  • Al- Moazin Lite (Prayer times)
  • Audiosdroid Audio Studio DAW
  • Full Quran MP3-50 Language & Translation Audio
  • Smart Kit 360
  • Handcent Next SMS - Text with MMS
  • Simple Weather & Clock Widget (Developed by Difer)
  • Qible Compass- Ramadan 2022
  • QR& Barcode scanner (Developed by AppSource Hub)
  • Wi-Fi Mouse (Remote Control PC)

সর্বশেষ কথাঃ

পরিশেষে আমরা বলতে পারি য়ে Google play store এর কিছু অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে  গুগল কম্পানি যা আপনাদের ক্ষতি করে তাকে বিভিন্ন্ ভাবে। ইমেইল থেকে বা ফোন এর নাম্বার পাসওয়ার্ড এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য চুরি  করতে সক্ষম এই অ্যাপ গুলো সেজন্য গুগল তাদেরকে নিষিদ্ধ করেছে। এর মধ্যে  গুগল প্লে স্টোরে ইতিমধ্যেই 10টি অ্যাপ কে ব্যান্ড করেছে। Google এ আ্যাপ গুলো হ্যাকিং এর জন্য হ্যাকাররা ওত পেতে রযেছে। আজকে আপনাদের কাছে এই আটিকেলটি ভালো লেগে থাকলে ফেসবুক আইডিতে শেয়ার ও কমেন্ট করুন।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?